logo
   প্রচ্ছদ  -   জাতীয়

সরকার দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাসে বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে : প্রধানমন্ত্রী
Posted on Oct 12, 2017 05:53:27 PM.


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বর্তমান সরকার দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস কার্যক্রমে কাঠামোগত ও অবকাঠামোগত বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।


আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস-২০১৭’ উপলক্ষে আজ এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘দুর্যোগ সহনীয় আবাস গড়ি, নিরাপদে বাস করি’। বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও আগামীকাল ‘আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস-২০১৭’ পালন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণ যাতে বিনামূল্যে আবহাওয়ার বার্তা পায় সেজন্য আমরা যে কোনো মোবাইল থেকে ১০৯০ নম্বরে (টোল ফ্রি) ফোন করে আবহাওয়া বার্তা পাওয়ার ব্যবস্থা করেছি। ভূমিকম্প মোকাবিলায় ইতোমধ্যেই ১৬৯ কোটি টাকার উদ্ধার সামগ্রী ক্রয় করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা তহবিল গঠন, ন্যাশনাল ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার প্রতিষ্ঠার জন্য জমি বরাদ্দের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় ও বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। ১৩ হাজার ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্প চলমান আছে। মুজিব কিল্লা নির্মাণ প্রকল্প এবং গ্রামীণ রাস্তা হেরিং বোন বল্ড করার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

বিল্ডিং কোড অনুসরণ করে ভবন নির্মাণ করার আহবান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস কার্যক্রমে আরো অধিক সংখ্যক নগর স্বেচ্ছাসেবক তৈরি করতে হবে। প্রত্যেকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস আদালত, শিল্পকারখানা, মার্কেট ও ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে নিজস্ব প্রশিক্ষিত দুর্যোগ স্বেচ্ছাসেবক তৈরি করতে হবে।

তিনি বলেন, এবারের হাওড় অঞ্চলের ৬টি জেলায় আকস্মিক ও নজিরবিহীন বন্যা, রাঙ্গামাটি, বান্দরবান ও চট্টগ্রামের পাহাড়ধস, উপকূলীয় অঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় মোরা ও উত্তর অঞ্চলসহ দেশের ৩৫টি জেলায় দুই দফায় ব্যাপক বন্যা সরকার সফলতার সাথে মোকাবিলা করছে।বজ্রপাত মোকাবিলায় ইতোমধ্যেই সারাদেশে ১০ লাখ তালগাছ রোপণ কার্যক্রম চালু হয়েছে। বজ্রপাত ও ভূমিকম্পের মতো দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারি পদক্ষেপের পাশাপাশি আমাদের সকলকে সচেতন হতে হবে।

তিনি বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস কর্মসূচি প্রণয়নের পথিকৃৎ। তিনি ঘূর্ণিঝড় থেকে জানমাল রক্ষায় মুজিব কিল্লা নির্মাণের ব্যবস্থা করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজনের প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা হিসেবে ১৯৭৩ সালে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি) প্রতিষ্ঠা করেন যা আজ সারাবিশ্বে সমাদৃত।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুর্যোগ বিষয়ক স্থায়ী আদেশাবলি অধিকতর পরিমার্জিত আকারে ২০১০ সালে স্ট্যান্ডিং, অর্ডার অন ডিজাস্টার নামে প্রকাশিত হয়। এছাড়া আমরা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২, জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নীতিমালা-২০১৫ সহ গুরুত্বপূর্ণ আইন ও নীতিমালা প্রণয়ন করেছি। বাণীতে প্রধানমন্ত্রী আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস-২০১৭’ এর সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   দেশি জাত রক্ষা ও বিদেশি ফল চাষে গবেষণা বাড়াতে হবে- কৃষিমন্ত্রী
   আজ আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস
   আজ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা দিবস
   ফলদবৃক্ষ ও পুষ্টির জনসচেতনতা সুস্থ জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে : প্রধানমন্ত্রী
   পরিবেশসম্মত নিরাপদ ফল উৎপাদনে সচেতন হতে হবে : রাষ্ট্রপতি
   গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের সংবর্ধনা
   মাদকের গডফাদারদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড
   হজযাত্রীর পাসপোর্টে মক্কা-মদিনার বাসার ঠিকানা বাধ্যতামূলক
   বর্ধিত সভায় নেতাকর্মীদের নির্বাচনী দিক-নির্দেশনা দেবেন শেখ হাসিনা
   মানবসম্পদ উন্নয়নে ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে জাপান
   আর্ট ক্যাম্পেইনের শুভ সূচনা করলেন স্পিকার
   বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী
   বিশ্ব সংগীত দিবস আজ
   বিশ্ব শরণার্থী দিবস আজ
   ডিএমপিতে তিন থানায় নতুন ওসি
   শেখ হাসিনা বিশেষ বার্তা দেবেন ২৩ জুন
   রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ
   বিসিএসসহ সকল নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন মুদ্রণ করবে পিএসসি
   দশম দিনেও নন-এমপিওদের আন্দোলন অব্যাহত
   ছিনতাইয়ের শিকার জার্মান তরুণী, কাঁদতে কাঁদতে ঢাকা ছাড়লেন
   আজ বিশ্ব বাবা দিবস
   আগামীকাল খুলছে সরকারি অফিস
   শোলাকিয়ায় দেশের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত
   আজ খুশির ঈদ, দেশবাসীকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ
   মা-ছেলের পছন্দ ব্রাজিল
   জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক কাল
   আজকের আবহাওয়া
   নব্য জেএমবি’র ৪ সদস্য গ্রেফতার
   যাত্রীর চাপ নেই সদরঘাটে
   আজ থেকে ঈদ স্পেশাল ট্রেন চালু


  পুরনো সংখ্যা