logo
   প্রচ্ছদ  -   জাতীয়

মানবতাবিরোধী আজহার-কায়সারের আপিল শুনানি ১০ অক্টোবর।
Posted on Aug 13, 2017 12:09:22 PM.

মানবতাবিরোধী আজহার-কায়সারের আপিল শুনানি ১০ অক্টোবর।

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডের সাজাপ্রাপ্ত আসামি জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এ টি এম আজহারুল ইসলাম এবং সাবেক প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের আপিল শুনানির জন্য আগামী ১০ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।


একই সঙ্গে আগামী ২৪ আগস্টের মধ্যে দুই আসামি এবং রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিলের সারসংক্ষেপ আদালতে জমা দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। রোববার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বিভাগ শুনানির জন্য এই দিন ধার্য করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম এবং আসামি জামায়াত নেতা আজহারুলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জয়নুল আবেদিন এবং সৈয়দ মো. কায়সারের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এস এম শাহজাহান।

এ টি এম আজহারুল ইসলামকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়ে ২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর তার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার রায় ঘোষণা করেছিলেন ট্রাইব্যুনাল। এটি ট্রাইব্যুনালের ১৫তম রায়। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর এটি ষষ্ঠ রায়। রায়ে বলা হয়, আসামি আজহারের বিরুদ্ধে আনীত ছয়টি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটি সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। এর মধ্যে ২, ৩ ও ৪ নম্বর অভিযোগে তাকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ, ৫ নম্বর অভিযোগে তাকে ২৫ বছরের কারাদণ্ডাদেশ ও ৬ নম্বর অভিযোগে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

১ নম্বর অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে ওই অভিযোগ থেকে অব্যাহতি (খালাস) দেওয়া হয়। এ মামলায় ট্রাইব্যুনালের আদেশে রাজধানীর মগবাজারে নিজ বাসা থেকে ২০১২ সালের ২২ আগস্ট আজহারকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারকে ২০১৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়ে রায় ঘোষণা করেন ট্রাইব্যুনাল। এটি ট্রাইব্যুনালের ১৪তম রায়। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর এটি পঞ্চম রায়। কায়সারকে ২০১৩ সালের ২১ মে গ্রেপ্তার করা হয়। শারীরিক অসুস্থতার কারণে বিচার চলাকালে পুরো সময় তিনি শর্তসাপেক্ষে জামিনে ছিলেন। এ দুই আসামিই ট্রাইব্যুনালের দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করেন।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   ফোন রিস্টার্ট করার প্রয়োজনীয়তা
   আগামীকাল রাজ্জাকের দাফন, আসছেন মেজ ছেলে বাপ্পি
   বিভিন্ন নদ-নদীর পানি কমছে
   আজ পেট্রলবোমায় হতাহতদের পরিবারকে চেক প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী
   সাত খুন মামলার আপিলের রায়ের অপেক্ষা
   অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ২২ কর্মকর্তার বদলি
   অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি
   চলচ্চিত্র তারকা রাজ্জাকের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
   চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক বুধবার
   নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক
   শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য আমাদেরকে সবধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন তারেক : মুফতি হান্নান
   শামসুল আরেফিন দুদকের নতুন সচিব
   হজে গিয়ে সৌদি আরবে আরও দুই বাংলাদেশির মৃত্যু
   মেয়র আনিসুল হকের শারীরিক অবস্থার উন্নতি
   বঙ্গবন্ধুর আদর্শ আমাদের প্রেরণার উৎস : রাষ্ট্রপতি
   বিআরটিসি’র ঈদ স্পেশাল বাস সার্ভিস ২৯ আগস্ট শুরু
   ঈদ উপলক্ষে বিশেষ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
   বুধবার জিলহজের চাঁদ দেখা গেলে ঈদ হবে ২ সেপ্টেম্বর
   ২৪ আগস্ট থেকে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু
   ২১ আগস্ট ভয়াবহতম গ্রেনেড হামলার ১৩তম বার্ষিকী আজ
   কোনো মানুষ না খেয়ে মরবে না, প্রয়োজনে জীবন দিবো: প্রধানমন্ত্রী
   বন্যা দুর্গতরা নতুন ফসল ঘরে তোলার আগ পর্যন্ত ত্রাণ সমগ্রী পাবেন : প্রধানমন্ত্রী
   ঈদে শ্রমিকদের ছুটি শুরু ২৮ অগাস্ট
   ফেসবুকে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের কুরুচিপূর্ণ Edited ছবি আপলোডকারী গ্রেফতার
   বীর মুক্তিযোদ্ধা খাঁন টিপু সুলতানের জানাজা অনুষ্ঠিত
   সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা খান টিপু সুলতানের মৃত্যুতে স্পিকারের শোক
   সাবেক এমপি খাঁন টিপু সুলতানের ইন্তেকালে রাষ্ট্রপতির শোক
   বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হবে : ত্রাণ মন্ত্রী
   ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের রেল চলাচল বন্ধ
   বন্যাকবলিত এলাকায় মেডিকেল টিম নিষ্ঠার সাথে কাজ করছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


  পুরনো সংখ্যা