logo
   প্রচ্ছদ  -   তথ্য-প্রযুক্তি

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে কঠোর আইনের দাবি আমেরিকাবাসীর
Posted on Mar 25, 2018 01:53:36 PM.

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে কঠোর আইনের দাবি আমেরিকাবাসীর

জীবনের থেকে বেশি মূল্যবান জিনিস আর কিছু হতে পারে না। সেই জীবনকে তাড়াতাড়ি কেড়ে নেওয়ার অধিকার কারও নেই। এই বার্তা দিয়ে প্রতিবাদ মিছিলে উত্তাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যুবসমাজের নেতৃত্বে এই মিছিলে পা মেলাল আট থেকে আশি। দাবি, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে কঠোর আইন আনতে হবে দেশে।

দেশটিতে সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি ভয়াবহ হামলার পর কয়েকটি ছাত্র সংগঠনের আয়োজিত এই বিক্ষোভ মিছিলে অন্তত পাঁচ লাখ মানুষ অংশ নিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরে ও বাইরে বিশ্বের প্রায় ৮০০ শহরে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। 

মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন জানিয়েছে, ওয়াশিংটন, ফিলাডেলফিয়া ও পার্কল্যান্ড ফ্লোরিডায় প্রথমে এ বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভকারীদের মূল স্লোগান ছিল ‘মার্চ ফর আওয়ার লাইভস’ বা ‘জীবনের জন্য মিছিল’। বিক্ষোভাকারীরা তাদের জীবনের প্রতি মূল্য দিতে এবং আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইন আরও কঠোর করার দাবি জানান।

এসব বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের বেশিরভাগ ছিলেন স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আমেরিকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে স্বয়ংক্রিয় আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে হামলার প্রতিবাদেই মূলত তারা এ বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।

গতমাসে ফ্লোরিডার একটি স্কুলে এক কিশোরের গুলিতে ১৭ জনের মৃত্যুর পর এই বিক্ষোভকে মার্কিন অস্ত্র আইন বিরোধী সর্বোচ্চ প্রতিবাদ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এসময় সারাদেশ থেকে আগত বিক্ষোভকারীরা রাজধানী ওয়াশিংটনে এসে জড়ো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রসহ পৃথিবীর আরো প্রায় ৮০০ শহরে একই ধরণের প্রতিবাদ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়েছে। মার্কিন জনগণের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে একই সময়ে লন্ডন, মাদ্রিদ, প্যারিস, এডিনবার্গ, জেনেভো, সিউল, টোকিও ও সিডনিতেও বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। এর ফলে আয়োজকরা আশা করছেন, দেশের প্রচলিত অস্ত্র আইনে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটাবেন ক্ষমতাসীন ট্রাম্প প্রশাসন। যদিও এ ব্যাপারে হোয়াইট হাউজের তেমন কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না।

এদিকে মার্কিন গণমাধ্যমে প্রকাশিত এক মতামত জরিপ থেকে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের অর্ধেকেরও বেশি মানুষ প্রচলিত আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে পরিবর্তন চান। 

৬৯ শতাংশ মার্কিন নাগরিক মনে করেন, যে কোনো মানুষের পক্ষ থেকে আগ্নেয়াস্ত্রের সহজপ্রাপ্তির ওপর কড়াকড়ি আরোপ করা প্রয়োজন। কিন্তু এ কাজের পথে প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছেন অস্ত্র ব্যবসায়ী ও তাদের পৃষ্ঠপোষক রাজনীতিবিদরা।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   এবার ইন্সটাগ্রামে চালু হলো টিভি
   আইসিটি খাতে ৩ হাজার লোককে প্রশিক্ষণ দেবে হাইটেক পার্ক
   কম্পিউটারে হোয়াটসঅ্যাপ, মিলবে সব সুযোগ
   গুরুত্বপূর্ণ ই-মেইল নোটিফিকেশন পাঠাবে জিমেইল
   অভাবনীয় কাজে ব্যবহৃত হবে ফাইভজি
   হেডফোন ব্যবহারের ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে জেনে নিন
   ইয়াহুকে আড়াই লাখ পাউন্ড জরিমানা
   স্মার্টফোন কেনার সময় মাথায় রাখুন বিষয়গুলো
   ১৭ জুলাই বন্ধ হতে যাচ্ছে ইয়াহু মেসেঞ্জার
   সস্তা ফোনে কমে শ্রবণশক্তি
   এবার ১০ মিনিটেই ফুল চার্জ হবে স্মার্টফোন
   আইফোন এক্স-কেও ছাড়িয়ে শাওমি এমআই ৮
   অবশেষে লঞ্চ হল নতুন লেনোভো জেড ৫
   সংবাদ হাইলাইটস ভিডিও আনছে ফেইসবুক
   পেন্টাগনের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করল গুগ্‌ল
   এবার স্মার্টফোন চার্জ করা যাবে পানি দিয়ে!
   সরকার আইটি খাতের জন্য ৩৫৮ জন এসিএমপি গ্রাজুয়েটস তৈরি করেছে
   নতুন স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করল চীন
   যাত্রীসেবায় নতুন পরিবহন সার্ভিস ‘রাইডহোস্ট’
   পাপুয়া নিউগিনিতে বন্ধ হচ্ছে ফেসবুক
   হ্যাকারদের হাত থেকে সুরক্ষিত রাখুন আপনার পাসওয়ার্ড
   হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের দারুণ কিছু কৌশল
   পোশাক পরলে কেমন লাগবে, জানাবে ডিভাইস
   বজ্রপাত থেকে কম্পিউটার বাঁচানোর কৌশল
   শনিবার থেকে ইন্টারনেটের গতি স্বাভাবিক হবে
   জেনে নিন মানুষ ঘড়ি বাঁ-হাতে পড়ে কেন
   এবার পানি দিয়ে চার্জ হবে স্মার্টফোন
   শেষ হলো রাশিয়া-বাংলাদেশ আইটি সামিট: সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিতে একসাথে কাজ করার প্রত্যাশা
   অ্যাপে যখন ভাষা শিক্ষা
   পৃথিবীর সবচেয়ে দামি ১০ মোবাইল ফোন


  পুরনো সংখ্যা