logo
   প্রচ্ছদ  -   তথ্য-প্রযুক্তি

ভয়ংকর মরণ নেশা ‘ব্লু হোয়েল’ আঘাত করেছে বাংলাদেশে, খোঁজ রাখুন সন্তানের
Posted on Oct 09, 2017 12:41:02 PM.


স্বর্ণা বিদ্যালয়ের ফার্স্ট গার্ল হিসেবে পরিচিত ছিল। ওয়াইডব্লিউসিএ হাইয়ার সেকেন্ডারি গার্লস স্কুলে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত সম্মিলিত মেধা তালিকায় তার অবস্থান ছিল প্রথম।


মেধাবী ওই শিক্ষার্থী এই গেমের ফাঁদে পড়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করায় শঙ্কিত এ দেশের অভিভাবকেরাও। রো বিশ্বে ত্রাস ছড়িয়েছে অনলাইনভিত্তিক গেম ‘ব্লু হোয়েল’। ৫০ দিনে ৫০ ধাপে এই গেমটি শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর মুখেই ঠেলে দেয় প্রতিযোগীকে। সাধারণত অবসাদগ্রস্ত-বিষণ্ন কিশোর-কিশোরীদের আকৃষ্ট করে এই গেম।

এখন পর্যন্ত সারাবিশ্বে এই গেমের ফাঁদে পড়ে যতজনের প্রাণ ঝরেছে, তার মধ্যেও বেশিরভাগই কিশোর-কিশোরী। সেজন্য দেশের অভিভাবকদের পরামর্শ দিয়ে মনোবিদরা বলছেন, যেন তাদের শিশু ও কিশোর-কিশোরী সন্তানদের ওপর নজর রাখা হয়। বিশেষত যারা ইন্টারনেট-স্মার্টফোন ব্যবহার করে।

মরণ নেশায় আক্রান্ত হয়ে স্বর্ণা ছাড়াও  বাংলাদেশে আরও কয়েকজন তরুণ-তরুণী আত্মহত্যা করেছে বলে অসমর্থিত বিভিন্ন খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। এর আগে ভারত, চীন, ব্রাজিল, রাশিয়া, ইন্দোনেশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে কয়েকশ তরুণ-তরুণীর মৃত্যু হয়েছে ব্লু হোয়েলের ফাঁদে পড়ে।

** Blue whale (ব্লু হোয়েল) এর অর্থ নীল তিমি। মৃত্যুর আগে নীল তিমিরা সাগর থেকে তীরে উঠে আসে। সেজন্য কেউ কেউ ধারণা করেন, তিমিরা আত্মহত্যা করে। এ কারণে এই গেমের নামকরণ হয়েছে ‘ব্লু হোয়েল’। এই গেম কারো পাঠানো গোপন লিংকের মাধ্যমে ছড়াচ্ছে ডিজিটাল ডিভাইসে। একবার ইনস্টল হয়ে গেলে ডিভাইস রিসেট করা ছাড়া আর রিমোভ করা যায় না গেমটি। পুরো গেম নিয়ন্ত্রণ করে আড়ালে থাকা একদল কিউরেটর।

** এই গেমে প্রতিযোগীকে মোট ৫০টি আত্মনির্যাতনমূলক ধাপ শেষ করতে হয়। প্রথম দিকের ধাপগুলো তুলনামূলক অ্যাডভেঞ্চারাস, মজার ও সহজ মনে হলেও শেষ ধাপগুলো একেবারেই ভয়ঙ্কর। কিন্তু প্রথম দিকে মজা পেয়েই প্রতিযোগী কিশোর-কিশোরীরা আসক্ত হয়ে পড়েন এতে। আর সেই আসক্তির সুযোগ নিয়েই গেমটি তাকে ধীরে ধীরে নিয়ে যায় শেষ পরিণতি মৃত্যুতে।

** এই গেমের প্রথম ১০টি ধাপে প্রতিযোগীকে বেশ আকর্ষণ করার মতো। যেমন মধ্যরাতে ঘুম থেকে উঠে ভৌতিক মুভি দেখা, চিৎকার-চেঁচামেচি করা, ভোরে ছাদের কিনারা ধরে হাঁটাহাঁটি করা। এরপর ক্রমেই মোহাবিষ্ট করে একে একে আসতে থাকে শরীরে একাধিক সুঁই বিদ্ধ করা, নিজের হাত রক্তাক্ত করে তিমির ছবি আঁকা ইত্যাদি। এই গেমের ছলেই কিউরেটররা হাতিয়ে নেয় প্রতিযোগীর ব্যক্তিগত ও

পারিবারিক অনেক তথ্য। শেষ পর্যায়ে প্রতিযোগী বুঝতে পারে যে, এই গেম তাকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। সেজন্য মুক্তি পেতেও চাইবে সে। তখনই ফাঁদ পাতবে কিউরেটর। হাতিয়ে নেওয়া তথ্য ব্যবহার করেই প্রতিযোগীর পরিবারের এমনকি মা-বাবার ক্ষতি করার হুমকি দেবে। বলবে, মুক্তি পেতে চাইলে তার কথা মতো কাজ করতে হবে। প্রতিযোগীও উপায় না পেয়ে কিউরেটরের কথা অনুযায়ী ধাপ অতিক্রমে এগিয়ে যাবে। এগিয়ে যাবে আত্মহত্যার দিকে। সেটা বাড়ির ছাদ থেকে লাফ দিয়ে, বা গায়ে আগুন ধরিয়ে অথবা গলায় ফাঁস দিয়ে কিংবা অন্য কোনো উপায়ে।

** ২০১৬ সাল থেকে ছড়িয়ে পড়া এই প্রাণঘাতী গেমের কিউরেটর সন্দেহে সে বছরই ফিলিপ বুদেকিন নামে এক তরুণকে পাকড়াও করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে ওই তরুণ স্বীকার করেন, এই গেমের শিকার যারা, তারা সমাজে বেঁচে থাকার যোগ্য নয়। তাদের মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়ে সমাজ সংস্কার করছে ‘ব্লু হোয়েল’।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘এটি মূলত গেমস না, একজন ক্যাপ্টেন পেছন থেকে এটি পরিচালনা করে। এর মোট ৫০টি ধাপ অতিক্রম করতে হয়। ৫০তম ধাপে গিয়ে বলা হয়, আত্মহত্যা করতে। আর প্রতিটি ধাপেই ব্যবহারকারীকে একটি করে চ্যালেঞ্জ দেওয়া হয়।

কোনো মানুষ এ ধরনের ঘটনার শিকার হোক বা এ ধরনের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকুক, এটা কেউ চায় না। আমাদের এখানে যে ঘটনা ঘটেছে, তার জন্য আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি। আমাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম দিয়ে যদি এটি ঢুকে, তবে জাতীয়ভাবে এর গেটওয়ে বন্ধ করে দেওয়া উচিত। ভারতে এরই মধ্যে যেসব এলাকায় এর লিংক আছে, তা মুছে দেওয়া হয়েছে বা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সরকারের অবশ্যই এ ক্ষেত্রে এগিয়ে আসা উচিত। কারণ, ইন্টারনেটের গেটওয়ে সরকারের হাতে। আমরা শুধু সচেতনতা বাড়াতে পারব। এটি ব্লক করে দেওয়ার চাবি সরকারের হাতে।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   সিঙ্গাপুরে এবার রোবট রাজহাঁস
   মাত্র ৩ হাজার ৯৯৯ টাকায় ‘প্রিমো ই৮এস’ দিচ্ছে ওয়ালটন
   সফল মিশন শেষে পৃথিবীতে ফিরেছে স্পেসএক্স ড্রাগন
   বিশ্বের সবথেকে ছোট গাড়ি
   ফেসবুক আনছে পোর্টাল নামে নতুন ভিডিও ডিভাইস
   ক্ষমা চাইল অ্যাপল
   একগুচ্ছ নতুন সুবিধা আসছে হোয়াটসঅ্যাপে
   নিউজ ফিডে আবারও পরিবর্তন আনছে ফেসবুক
   আজ থেকে শুরু হচ্ছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
   যে পেনড্রাইভ মোবাইলেও কানেক্ট করা যাবে
   আগামীকাল থেকে রাজধানীতে তিনদিনব্যাপী স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
   ফোর টায়ার ডাটা সেন্টার উদ্বোধন হচ্ছে এপ্রিলেই
   মহাকাশে গিয়ে উচ্চতা বাড়ল জাপানি নভোচারীর
   এবার বাজারে এলো নোকিয়া ৬ (২০১৮)
   স্মার্ট যুগে স্মার্ট গাড়ি
   প্রযুক্তিতে এ বছর কী শিখবেন?
   স্যামসাংয়ের নতুন ৪জি ট্যাব
   ম্যাক ডিভাইসে ভাইরাস, অ্যাপলের সতর্কতা
   আশার আলো: টাক নিয়ে আর চিন্তা নেই
   বাজারে আসছে ৬০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার স্মার্টফোন!
   বিশ্বের সবচেয়ে বড় ওলেড টিভি আনছে এলজি
   স্মার্টফোন কেনার পর করণীয়
   নতুন বছর হতে পারে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের বছর; ধারণা বিজ্ঞানীদের
   কী থাকছে নোকিয়া ৯ ফোনে!
   ফেসবুকে বেশি লাইক পাতে বাচ্চাকে ঝুলালো বাবা
   জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে গেলে জিডি লাগবে না
   ব্ল্যাকবেরি বাজারে আনছে চালকবিহীন গাড়ি
   নতুন বছরে যেসব ফোনে ‘হোয়াটসঅ্যাপ’ কাজ করবে না
   গাড়ি সেবায় আসছে ট্রিপ্পো
   কেনাকাটায় আইফোন টেনের ফেস আইডি সমস্যা


  পুরনো সংখ্যা