logo
   প্রচ্ছদ  -   আন্তর্জাতিক

চারদিনের ব্যবধানে আবারও তীব্র ভূমিকম্প ইন্দোনেশিয়ায়
Posted on Aug 09, 2018 05:28:31 PM.

চারদিনের ব্যবধানে আবারও তীব্র ভূমিকম্প ইন্দোনেশিয়ায়

আবারও তীব্র ভুমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া ৷ আবারও সেই লম্বোক ৷ বৃহস্পতিবার নতুন করে কম্পন অনুভূত হয় সেখানে ৷ কম্পনের মাত্রা ৬.১ ৷

মাত্র চারদিন আগেই ভূমিকম্পে লন্ডভন্ড হয়ে যায় ইন্দোনেশিয়া ৷ তার প্রভাব এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি সেদেশের বাসিন্দারা ৷ এরই মধ্যে ফের তীব্র কম্পন সেখানে প্রবল আতঙ্ক ছড়ায়৷ রবিবারের তীব্র কম্পনের পর এখনও অবধি তিনশ’র অধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে ৷ ১৪০০ মানুষ গুরুতর আহত হয়েছেন ৷ মাটিতে মিশে গিয়েছে ঘর,বাড়ি, স্কুল, কলেজ, মসজিদ৷ আশ্রয়হীন হাজার হাজার মানুষ৷ চারিদিক থেকে কেবল মানুষের আর্তনাদ শোনা যাচ্ছে ৷ প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে মৃতের সংখ্যা ৷

রবিবারের পরও পরপর দু’দিন প্রায় ৩৫৫ বার আফটারশক হয়েছে ৷ কিন্তু বৃহস্পতিবারের কম্পনকে কোনও ভাবেই আফটার শক বলতে নারাজ ভূবিজ্ঞানীরা ৷ নতুন করে কম্পন হয়েছে ইন্দোনেশিয়ার লম্বোকে৷ বিভিন্ন ছবি ও ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা বাইক উল্টে গিয়েছে ৷ কয়েকটি বাড়ির দেওয়াল ভেঙে পড়েছে৷ ফলে আবারও নতুন করে প্রাণহানির শঙ্কা করা হচ্ছে৷

উদ্ধারকার্যের সঙ্গে জড়িত এক ব্যক্তি বলেন, ‘‘আমরা দুর্গতদের সাহায্য করে ফেরার পথে রাস্তায় ট্রাফিকের জন্য আটকে পড়ি৷ কিছুক্ষণ পর মনে হল আমাদের গাড়িকে কেউ পিছন থেকে জোরে ধাক্কা মারছে৷ এতটাই তীব্র ছিল সেই কম্পন৷’’ কম্পনের জেরে নতুন করে প্যানিক ছড়িয়ে পড়ে বাসিন্দাদের মধ্যে৷ কেউ বাড়ির মধ্যে থেকে, কেউ গাড়ি থেকে দ্রুত রাস্তায় নেমে আসেন৷

এদিকে কম্পনের জন্য বারবার ব্যাহত হচ্ছে উদ্ধার ও ত্রাণ বিলির কাজ৷ কম্পনের জেরে রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় দুর্গতদের কাছে সময়মতো পৌঁছতে পাচ্ছে না ত্রাণ সামগ্রী৷ লম্বোকে বাসিন্দারা ডোনেশন ও খাবার চেয়ে কাডবোর্ড নিয়ে রাস্তায় নেমেছে৷ প্রশাসনের তরফ থেকে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ শুরু হয়েছে৷ কিছু জায়গা থেকে উদ্ধারকাজ ধীর গতিতে হচ্ছে বলে খবর আসছে৷ এক্ষেত্রে পরিকাঠামোগত সমস্যাকে দায়ী করছে ইন্দোনেশিয়া সরকার৷




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   ক্রিমিয়ায় রুশ জঙ্গি বিমান মোতায়েন
   না ফেরার দেশে চলে গেলেন নেপালের সাবেক প্রধানমন্ত্রী
   সোমালিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় ৬২ জঙ্গি নিহত
   কলকাতায় শুরু হল ‘বাংলাদেশ বিজয় উৎসব’
   জাপানের রেস্তোরাঁয় বিষ্ফোরণ, আহত ৪২
   জলবায়ু চুক্তি বাস্তবায়নে সম্মতি জানালো ২০০ দেশ
   ক্ষমতাচ্যুত হলেন মার্কিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
   শ্যালিকার নগ্ন ছবি অনলাইনে, দুলাভাইকে খুঁজছে পুলিশ
   মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ২০ আফগান নারী-শিশু
   যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে বোমা হামলার হুমকি
   পর্তুগালে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত; নিহত ৪
   সিরিয়ায় সেনা ঘাঁটি বৃদ্ধি করছে যুক্তরাষ্ট্র
   মন্দিরে প্রসাদ খেয়ে ভারতে নিহত ১১, আহত ৮২
   মার্কিন প্রতিনিধিসভায় রোহিঙ্গা গণহত্যার স্বীকৃতি
   গান্ধীর মূর্তি সরালো ঘানা বিশ্ববিদ্যালয়
   তুরস্কে উচ্চগতির ট্রেন লাইনচ্যুত, নিহত ৭
   ভিয়েতনামে ভারী বর্ষণে সৃষ্ট বন্যায় নিহত ১৩
   ট্রাম্পের আইনজীবীকে ৩ বছরের কারাদণ্ড
   এক চুমুতে জীবন গেল শিশুর!
   আস্থা ভোটে জয় পেল থেরেসা মে
   জাপানে নিখোঁজ ৫ নৌসেনাকে মৃত ঘোষণা
   ফ্রান্সে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন ম্যাক্রোঁ
   অজ্ঞাত বন্দুকধারীর হামলায় ফ্রান্সে নিহত ৩
   ইয়েমেনকে সহায়তায় ৫শ’ কোটি ডলার প্রয়োজনঃ জাতিসংঘ
   ব্ল্যাকজ্যাক পরমাণু বিমান মোতায়েন করল রাশিয়া
   দাবানলে পুড়েছে মনিবের বাড়ি, তবু পাহারা দিচ্ছে কুকুর!
   ১৫ বছর ধরে নারীদের হত্যা করেছেন রাশিয়ান এক পুলিশ কর্মকর্তা
   জাতিসংঘ অভিবাসন চুক্তি অনুমোদন
   কলম্বিয়ায় বাস উল্টে ১৩ জন নিহত
   খাশোগির শেষ কথা ছিল ‘আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না’


  পুরনো সংখ্যা