logo
   প্রচ্ছদ  -   আন্তর্জাতিক

জেলে দ্বিতীয় শ্রেণির বন্দীর মর্যাদা পাচ্ছেন নওয়াজ শরিফ
Posted on Jul 15, 2018 10:16:11 AM.

জেলে দ্বিতীয় শ্রেণির বন্দীর মর্যাদা পাচ্ছেন নওয়াজ শরিফ

পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট নওয়াজ শরিফ এবং তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা জেলে রাখা হয়েছে। তাদেরকে দ্বিতীয় শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। শুক্রবার রাতে লন্ডন থেকে আবুধাবি হয়ে দেশে ফেরার পরই লাহোর বিমানবন্দরে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। পরে ইসলামাবাদ নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে এক সপ্তাহে নির্বাচনী সভায় হামলায় দেড়শ’র বেশি নিহত হওয়ায় আজ রবিবার দেশটিতে একদিনের শোক পালন করা হবে। খবর ডন ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার
 
আদিয়ালা জেলে নওয়াজ ও মরিয়ম
শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করে একটি বিশেষ বিমানে ইসলামাবাদ বিমানবন্দরে নামেন নওয়াজ (৬৮) ও তার মেয়ে মরিয়ম (৪৪)। এ সময় দেশটির জাতীয় জবাবদিহিতা ব্যুরোর প্রতিনিধি দলসহ নিরাপত্তারক্ষীরা উপস্থিত ছিলেন। বিমানবন্দর থেকে পৃথক গাড়িতে আদিয়ালা জেলে নিয়ে যাওয়া হয়। এর আগে তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। পরে আদিয়ালা জেলের একটি কক্ষে রাতযাপন করেন নওয়াজ শরিফ। আর মরিয়মকে পাঠানো হয় নারীদের ব্যারাকে। জাতীয় জবাবদিহিতা ব্যুরো নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে নওয়াজ শরিফ ও তার মেয়ের আদালতে স্বশরীরে হাজিরা থেকে অব্যাহতি চান। আদালত সেই আবেদন মঞ্জুর করে। ইসলামাবাদের প্রশাসন সিহালা পুলিশ ট্রেনিং কলেজকে সাব জেল ঘোষণা করেছিল। কিন্তু রাতে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে তাদেরকে আদিয়ালা জেলে নেওয়া হয়। আপাতত তাদের সেখানেই রাখা হবে বলে প্রশাসনের একটি সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে জি নিউজ।
 
জেলে সুবিধা
নওয়াজ ও তার কন্যাকে দ্বিতীয় শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। সাধারণত যে সমস্ত বন্দীর আলাদা সামাজিক মর্যাদা রয়েছে, যারা শিক্ষিত অথবা ধনী জীবন-যাপনে অভ্যস্ত তাদের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির বন্দীর মর্যাদায় রাখা হয়। তাদেরকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয় না। তারা তৃতীয় শ্রেণির অশিক্ষিত বন্দীদের পড়ান। দ্বিতীয় শ্রেণির বন্দীরা কক্ষে সরকার থেকে একটি খাট, একটি চেয়ার, একটি চায়ের পাত্র, একটা লণ্ঠন (যদি বিদ্যুৎ না থাকে), একটি তাক এবং গোসল ও বাথরুমের জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পান। তারা টিভি, এসি, ফ্রিজ এবং পত্রিকাও রাখতে পারেন। তবে কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে এগুলোর ব্যয়ভার বন্দীদেরই বহন করতে হয়।
 
আজ শোক দিবস
পাকিস্তান চলছে শোকের মাতম। গত এক সপ্তাহে দেশজুড়ে সন্ত্রাসী হামলায় দেড়শ’র বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। নিহতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। তারা অভিযোগ করেছেন, সভাগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল একেবারেই নাজুক। গতকাল শনিবার দেশটির ফেডারেল সরকার রবিবারকে শোক দিবস হিসেবে ঘোষণা করে।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   তুরস্কের কাছে প্রমাণ চায় যুক্তরাষ্ট্র
   আফগানিস্তানে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৪
   সীমান্ত অস্ত্রমুক্ত করা নিয়ে দুই কোরিয়ার আলোচনা
   এলাহাবাদের মুসলিম নাম বদলে ‘প্রয়াগরাজ’ করলো বিজেপি
   সামরিক খাতে যুক্তরাষ্ট্রের নির্ভরতা কমাবে জার্মানি
   চীনে ৫.৪ মাত্রার ভূমিকম্প
   জার্মানিতে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৩ জন নিহত
   পদত্যাগ করতে পারেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী
   মহানগর গোয়েন্দা (বন্দর) পুলিশের বিশেষ অভিযান
   বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন রবার্ট মিলার
   মাছের দাম দুই কোটি টাকা!
   অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছে বেইজিং
   দেখতে কিম জং উনের মতো
   ইরান হতে তেল আমদানি বন্ধে ভারতে দূত পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
   ইন্দোনেশিয়ায় ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের তহবিল ঘোষণা বিশ্বব্যাংকের
   সৌদি সেনা অবস্থানে ইয়েমেনের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা
   মালয়েশিয়ায় উপনির্বাচনে জয় পেল আনোয়ার ইব্রাহিম
   ঘূর্ণিঝড় মাইকেলের আঘাতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬
   কিম সব পারমাণবিক অস্ত্র ধ্বংস করতে ইচ্ছুক: মুন
   বাংলাদেশে ও পশ্চিমবঙ্গে জঙ্গি হামলার ষড়যন্ত্র হচ্ছে ঢাকাস্থ পাকিস্তান হাই কমিশনে
   ইয়েমেনে হামলা বন্ধে জাতিসংঘের আহ্বান
   চালু হলো বিশ্বের দীর্ঘতম বিরতিহীন ফ্লাইট
   উগান্ডায় ভূমিধসে প্রায় ৫০ জন নিহত
   পাকিস্তানকে ৪৮টি সামরিক ড্রোন দিচ্ছে চীন
   রাশিয়া ইসরায়েলকে সতর্ক করল
   ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় তিতলি
   জলবায়ু পরিবর্তনে ইরাকি জলাধার শুকিয়ে মরুভূমি
   চাকরি হারাতে পারেন ১৮ কোটি নারী
   বিশ্বে সবচেয়ে ক্ষমতাধর জাপানি পাসপোর্ট
   তুরস্কে নৌকাডুবে নিহত ৪, নিখোঁজ ৩০


  পুরনো সংখ্যা