logo
   প্রচ্ছদ  -   আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানে বোমায় রক্তাক্ত নির্বাচনী সভা, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩২
Posted on Jul 14, 2018 10:16:41 AM.

পাকিস্তানে বোমায় রক্তাক্ত নির্বাচনী সভা, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩২

আগামী ২৫ জুলাইয়ের পার্লামেন্ট নির্বাচনের আগে রক্তাক্ত হলো পাকিস্তান। একইদিনে নির্বাচনী জনসভায় দু’টি পৃথক বোমা হামলায় অন্তত ১৩২জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে দুই শতাধিক। নিহতদের মধ্যে একজন প্রার্থীও রয়েছেন।

একটি হামলা হয় বেলুচিস্তানের কোয়েটায় এবং অপরটি হয় আফগান সীমান্তের কাছে বান্নুতে। গতকাল শুক্রবার হামলা দু’টি চালানো হয়। খবর ডন ও বিবিসির
 
গতকাল কোয়েটার মাস্তুং জেলায় চালানো হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে আইএস। গতকাল নিজস্ব মিডিয়া আমাক নিউজ এজেন্সির মাধ্যমে জঙ্গি গোষ্ঠীটি দায়িত্ব স্বীকার করে। এতে ১২৮ জন নিহত হয়েছে। নির্বাচনী জনসভায় প্রায় হাজারখানেক মানুষ জড়ো হয়েছিল। ওই র‌্যালিতেই পরপর দু’টি জোরালো বিস্ফোরণ ঘটে। বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আগা উমর বানগুলজাই হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বেলুচিস্তানের সিভিল ডিফেন্স ডিরেক্টর আসলাম তারিন জানান, বিস্ফোরণ ঘটানোর জন্য ১০ কেজি বিস্ফোরক এবং বল বিয়ারিং ব্যবহার করা হয়েছে। প্রদেশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, জনসভার ভেতরেই এক ব্যক্তি নিজের শরীরে বাধা বোমার বিস্ফোরণ ঘটান।
 
মাস্তুংয়ে গতকালের হামলায় যতো মানুষের প্রাণহানি হয়েছে, পাকিস্তানে গত এক বছরেরও বেশি সময়েও একক কোন হামলায় এতো ব্যাপক সংখ্যক মানুষের হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেনি। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন বেলুচিস্তান প্রাদেশিক পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী সিরাজ রাইসানি। তিনি বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টির একজন প্রার্থী ছিলেন। বেলুচিস্তানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী নবাব আসলাম রাইসানি তার ভাই। দুই ভাই একই আসন (পিবি-৩৫) থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আসলাম রাইসানি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়াই করছেন।  অন্যদিকে গতকাল সকালেই আফগান সীমান্তের কাছে খাইবার পাখতুনখাওয়ার বান্নুতে মুত্তাহিদা মজলিস-এ-আমাল (এমএমএ) এর নির্বাচনী জনসভায় বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এমএমএ প্রার্থী আকরাম খান দুরানি অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান। তবে ওই বিস্ফোরণে ৪ জন নিহত হয়।
 
সর্বশেষ এই হামলার ঘটনা পাকিস্তানে একেবারেই অপ্রত্যাশিত ছিল। সেনাবাহিনী একদিকে যেমন দাবি করছে যে তারা জঙ্গিদের তাড়িয়ে দিয়েছে, তেমনি এরকম একটি হামলার ব্যাপারে কারো কাছ থেকে কোন হুমকিও ছিল না। এর আগে ২০১৩ সালের নির্বাচনের আগে জঙ্গিরা আগাম হুমকি দিয়েছিল। ফলে তখন কিছু কিছু রাজনৈতিক দল খুব কমই প্রচারণা চালিয়েছিল। ওই দলগুলোই আবার আক্রমণের লক্ষ্য হয়ে উঠেছে বলে মনে করা হচ্ছে। আর আক্রমণকারীদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, এসব দল যাতে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে না পারে। এই হামলার পর নির্বাচনের আগে নতুন করে উত্তেজনার সৃষ্টি হতে পারে।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   জাপানে নিখোঁজ ৫ নৌসেনাকে মৃত ঘোষণা
   ফ্রান্সে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন ম্যাক্রোঁ
   অজ্ঞাত বন্দুকধারীর হামলায় ফ্রান্সে নিহত ৩
   ইয়েমেনকে সহায়তায় ৫শ’ কোটি ডলার প্রয়োজনঃ জাতিসংঘ
   ব্ল্যাকজ্যাক পরমাণু বিমান মোতায়েন করল রাশিয়া
   দাবানলে পুড়েছে মনিবের বাড়ি, তবু পাহারা দিচ্ছে কুকুর!
   ১৫ বছর ধরে নারীদের হত্যা করেছেন রাশিয়ান এক পুলিশ কর্মকর্তা
   জাতিসংঘ অভিবাসন চুক্তি অনুমোদন
   কলম্বিয়ায় বাস উল্টে ১৩ জন নিহত
   খাশোগির শেষ কথা ছিল ‘আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না’
   ইয়েমেন যুদ্ধের রাজনৈতিক সমাধান চাইলেন সৌদি বাদশাহ
   ফ্রান্স জুড়ে চরম উত্তেজনা: আহত ১০০
   মারা গেলেন রুশ মানবাধিকারকর্মী লিউদমিলা আলেক্সেইয়েভা
   আম্বানির মেয়ের বিয়েতে ৫ হাজার মানুষের তিনবেলা ‘অন্নসেবা’
   ইশার বিয়ের অনুষ্ঠানে হিলারি ক্লিনটন
   ইশার বিয়ের অনুষ্ঠানে হিলারি ক্লিনটন
   ইসরায়েলি হামলায় ২৪ ফিলিস্তিনি নিহত
   মার্কিন আদালতে স্বীকারোক্তি দিলেন হিজবুল্লাহ’র প্রধান অর্থদাতা
   জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন হিদার নুয়ার্ট!
   জেটি ও হুয়াইও’র পণ্য নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে জাপান
   ৫.৫ মাত্রায় কেঁপে উঠল বিধ্বস্ত ইন্দোনেশিয়া
   মিয়ানমারকে ক্ষমা চাইতে বলেছে বাংলাদেশ
   জাপানে যুক্তরাষ্ট্রের দু’টি যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত, নিখোঁজ ৬
   নিউ ক্যালেডোনিয়ায় ৭.৫ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প
   দক্ষিণ সুদানে দেড় শতাধিক নারী ধর্ষিত
   পাপুয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় ২৪ শ্রমিক নিহত
   ব্রিটিশ রাজপরিবারে ভাঙনের গুঞ্জন
   মালয়েশিয়ায় বিস্ফোরণে শপিংমল বিধ্বস্তঃ নিহত ৩
   ঈশার বিয়েতে ২০০ টি বিমান ভাড়া
   উপসাগরীয় এলাকা থেকে তেল রপ্তানি বন্ধের হুমকি ইরানের


  পুরনো সংখ্যা