logo
   প্রচ্ছদ  -   অর্থ-বাণিজ্য

টেক্সটাইল খাতে দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় জাপান – বানিজ্যমন্ত্রী
Posted on Aug 01, 2018 10:49:53 AM.

টেক্সটাইল খাতে দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় জাপান – বানিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, টেক্সটাইল খাতে বাংলাদেশের দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় জাপান। তিনি বলেন, ‘এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হবার পরও বাংলাদেশকে দেয়া চলমান বাণিজ্য সুবিধা অব্যাহত রাখবে জাপান।

বাণিজ্যমন্ত্রী মঙ্গলবার সচিবালয়ে তার কার্যালয়ে বাংলাদেশে সফররত জাপানের হাউস অব কাউন্সিলর এর সদস্য (এমপি) হিরোসি ইয়ামাদা এবং ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত এর সাথে মতবিনিময়ের সময় এসব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, গত ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে বাংলাদেশ জাপানে রপ্তানি করেছে ১ হাজার ১২ দশমিক ৯৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য, একই সময়ে আমদানি করেছে ১ হাজার ৮৩৩ দশমিক ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। এখন জাপান বাংলাদেশের ৮ম বৃহত্তম রপ্তানি বাজার। আগামী ২ থেকে ৩ বছরের মধ্যে এ বাণিজ্য ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দাঁড়াবে।

তিনি বলেন, জাপানের বাজারে বাংলাদেশের তৈরী পোশাকের বেশ চাহিদা রয়েছে। এখন প্রায় ৯০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের তৈরী পোশাক জাপানে রপ্তানি হচ্ছে। দিন দিন এ চাহিদা বাড়ছে।

তিনি আরও বলেন, ‘এ মহুর্তে বাংলাদেশে জাপানের ৩১২টি কোম্পানি বিনিয়োগ করেছে, এখানে প্রায় ৪২ হাজার জনবল কাজ করছে। জাপানের বিনিয়োগ প্রায় ১ হাজার ৪৬৭ দশমিক ২৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।’বানিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোনের যেকোন স্থানে জাপানী বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের আহবান জানানো হয়েছে।

তিনি জানান, জাপানের বাণিজ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারী দল কিছুদিনের মধ্যে বাংলাদেশ সফর করবে। এসময় তারা বিনিয়োগের খাতগুলো চিহ্নিত করবেন। বিশ^বাণিজ্য সংস্থার উদ্যোগে ‘ওয়ার্ল্ড এক্সপো-২০২৫’ আয়োজনের জন্য রাশিয়া, জাপান ও আজারবাইজান প্রার্থী হয়েছে। জাপান বাংলাদেশের সমর্থন চেয়েছে। এ বিষয়ে যথাসময়ে বাংলাদেশ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘জাপানের পর্যবেক্ষণে বর্তমানে বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বেশ ভালো, কোন নিরাপত্তা ঝুঁকি নেই। এখন জাপান সরকার সেদেশের নাগরিকদের বাংলাদেশ ভ্রমনের উপর থেকে বিদ্যমান লেভেল-২ ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

জাপানের এমপি হিরোশা ইয়ামাদা বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিনত হচ্ছে জেনে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিনত হবার পরও জাপান বাংলাদেশের পাশে থাকবে এবং সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোইয়াসু ইজুমি এবং বাণিজ্যসচিব শুভাশীষ বসু এ সময় উপস্থিত ছিলেন।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   প্রাণিসম্পদ খাতের উন্নয়নে ৫০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন বিশ্বব্যাংকের
   ডেইরী ও প্রাণিসম্পদের উন্নয়নে ৫শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে বিশ্ব ব্যাংক
   ৩২ প্রতিষ্ঠান পেলো বেস্ট কর্পোরেট অ্যাওয়ার্ড
   দক্ষিণ এশিয়ার তিন দেশের মুদ্রার চেয়ে এগিয়ে টাকা
   ৫৬ প্রতিষ্ঠান পাচ্ছে জাতীয় রফতানি ট্রফি
   ধান উৎপাদনে বাংলাদেশ বিশ্বে চতুর্থ
   বেসরকারি ব্যাংকগুলো বেশি সুদে কৃষি ঋণ বিতরণ করছে : গভর্নর ফজলে কবির
   ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেওয়া যাবে আয়কর রিটার্ন
   আয়কর মেলার সাফল্য, ৯ বছরে আদায় ১৩ হাজার কোটি টাকা
   সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলায় রেকর্ড ২৪৬৯ কোটি টাকা আদায়
   আঞ্চলিক বাণিজ্যে বিমস্টেকের গুরুত্ব অনেক: বাণিজ্যমন্ত্রী
   আজ থেকে চট্টগ্রামে আয়কর মেলা শুরু
   আয়কর আদায়ের শীর্ষ ১০ দেশ
   আগামী ১৩ নভেম্বর থেকে করমেলা শুরু
   বাংলাদেশ ডাক বিভাগের নতুন সেবা ‘নগদ’
   ৮৫ বছরেও মনে হয় না বুড়ো হয়ে গেছি : অর্থমন্ত্রী
   বছরে ১২ হাজার কোটি টাকার উত্পাদনশীলতা ক্ষতি
   সংসদ থেকে বিদায় নিলেন অর্থমন্ত্রী
   বাংলাদেশে সচ্ছল পরিবারেও পুষ্টিহীনতা বড় সমস্যা
   নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের ঋণের শর্ত শিথিল
   মুনাফা বেড়েছে ব্যাংক এশিয়ার
   জিডিপির প্রবৃদ্ধি হবে ৭ শতাংশ : বিশ্বব্যাংক
   কে হচ্ছেন পরবর্তী অর্থমন্ত্রী?
   ৮৩ কোটি ডলার রেমিট্যান্স এসেছে ২১ দিনে
   বাংলাদেশের ইস্পাত শিল্পে বিনিয়োগ করছে জাপান
   বাংলাদেশ থেকে শিক্ষা নিতে পারে অন্য দেশ: বিশ্ব ব্যাংক
   চট্টগ্রাম বন্দরে নতুন রেকর্ড
   মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৭৫১ ডলার, জিডিপি ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ
   একনেক প্রতিবেদনে বিদায়ী অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬ শতাংশ
   দাম কমলো টিভিএস মোটরসাইকেলের


  পুরনো সংখ্যা