logo
   প্রচ্ছদ  -   অর্থ-বাণিজ্য

১০ লাখ নয়, ৩ লাখ টন চাল দিতে রাজী মিয়ানমার
Posted on Sep 09, 2017 10:39:10 AM.

১০ লাখ নয়, ৩ লাখ টন চাল দিতে রাজী মিয়ানমার

১০ লাখ টন চাল আমদানির লক্ষ্য নিয়ে মিয়ানমার গিয়েছিলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। কিন্তু মিয়ানমার সরকার রাজি হয়েছে ৩ লাখ টন চাল দিতে।


ওই পরিমাণ চাল আমদানির একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। তবে এর মধ্যে ৫০ হাজার টন সিদ্ধ ও আড়াই লাখ টন আতপ চাল দেবে মিয়ানমার। গত বৃহস্পতিবার মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোয় একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ওই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

বাংলাদেশের পক্ষে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও মিয়ানমারের পক্ষে দেশটির বাণিজ্যমন্ত্রী থান মিন্ট নিজ নিজ দেশের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। সমঝোতা অনুযায়ী রাষ্ট্রীয় সংস্থা মিয়ানমার রাইস ফেডারেশন আগামী ছয় বছর প্রতিবছর ৩ লাখ টন চাল বাংলাদেশে সরবরাহ করবে। তবে ওই চালের দাম কত হবে, তা ঠিক হবে আরও পরে। সংস্থাটির একটি প্রতিনিধিদল চলতি মাসে বাংলাদেশে এসে দাম নিয়ে আলোচনা করে তা ঠিক করবে।

তবে ওই চাল আগামী ডিসেম্বরের আগে বাংলাদেশে আসছে না বলে সংস্থাটির ভাইস প্রেসিডেন্ট সই টুন মিয়ানমারের দুটি শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। ইলেভেন মিয়ানমারদা গ্লোবাল পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সই টুন বলেন, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্রতিবছর ১০ লাখ টন চাল আমদানির ব্যাপারে আগ্রহ জানানো হয়েছিল। মিয়ানমার মূলত চীনসহ ২১টি দেশে চাল রপ্তানি করে। এ বছর নতুন করে ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের পক্ষ থেকে চাল আমদানির আগ্রহ দেখানো হয়েছে। ফলে মিয়ানমার এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভালো দামে চাল বিক্রি করতে চায়।

মিয়ানমারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী ২০১৭ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ বছরে ৩ লাখ টন করে চাল আমদানি করবে। এর আগে মিয়ানমার মূলত বিভিন্ন দেশে বেসরকারি খাতের মাধ্যমে চাল রপ্তানি করত। বাংলাদেশের সঙ্গে এই প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করল।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে খাদ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিব ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ হেলাল হোসেইন সাংবাদিকদের কে বলেন, চলতি মাসেই মিয়ানমারের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে আসবে। তারা চালের দাম নির্ধারণ করার পর রপ্তানির প্রক্রিয়া শুরু হবে।

মিয়ানমারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির শীর্ষ দৈনিক দ্য গ্লোবাল জানিয়েছে, বাংলাদেশ চাল আমদানি শুরু করায় মিয়ানমার চালের দাম বাড়াতে পেরেছে। চলতি বছরের আগস্ট পর্যন্ত তারা চাল রপ্তানি করে আয় করেছে ৩০ কোটি ডলার। গত বছর তা ছিল ১৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   জেনে নিন জাল নোট ও আসল নোট চেনার উপায়
   বাংলাদেশের ইপিজেডে বিনিয়োগে গভীর আগ্রহ প্রকাশ কানাডার
   রমজানে পুঁজিবাজারের লেনদেন শুরু সকাল ১০টা থেকে
   ১১০ মিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা চুক্তিতে স্বাক্ষর করল বিশ্বব্যাংক
   রমজান মাসে ব্যাংকে লেনদেন সাড়ে ৯টা থেকে আড়াইটা
   বাজেটে মানব সম্পদ উন্নয়ন ও শিক্ষাখাত অগ্রাধিকার পাচ্ছে : অর্থমন্ত্রী
   স্কুল বাসের ঘোষণা থাকবে আগামী বাজেটে
   নতুন এডিপির আকার হবে ১ লাখ ৭৩ হাজার কোটি টাকা
   কানাডার সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য ২০২১ সালে ৩ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে
   দ্বিগুণ হয়েছে খাদ্যশস্যের মজুদ
   দ্বিগুণ হয়েছে খাদ্যশস্যের মজুদ
   আজ এডিবি’র ৫১তম বার্ষিক সভা
   আগামী ৭ জুন ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হবে : অর্থমন্ত্রী
   প্রাইজবন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত
   আবাসিকে নতুন গ্যাস সংযোগ দেওয়া হচ্ছে
   ইসলামী ব্যাংকের সব বিনিয়োগ বন্ধ, কর্মকর্তাদের মধ্যে ‘ছাঁটাই’ আতঙ্ক
   পোশাক আমদানি ইউরোপের বেড়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের কমেছে
   বরগুনায় সূর্যমুখীর চাষ করে কৃষকরা লাভবান
   বিশ্বব্যাংকের সাথে ৫১৫ মিলিয়ন ডলারের দুটি চুক্তি স্বাক্ষর
   বিশ্বব্যাংকের সাথে ৫১৫ মিলিয়ন ডলারের দুটি চুক্তি স্বাক্ষর
   অনলাইনে বেড়েছে বৈশাখের কেনাকাটা
   আগ্রাবাদে ২৪ ঘণ্টা ব্যাংক খোলা রাখার নির্দেশ
   টানা তৃতীয়বার বিশ্বসেরা ব্র্যাক
   কাঁপছে বিশ্ব অর্থনীতি
   দর কমছে বিটকয়েনের
   এলডিসি’র প্রবৃদ্ধি অর্জনে শীর্ষ পাঁচে বাংলাদেশ
   আজ পর্দা নামছে বাণিজ্যমেলার
   বাংলাদেশ থেকে অধিক পরিমাণে ওষুধ আমদানির আগ্রহ প্রকাশ করেছে ভুটান
   ১০০ টাকার প্রাইজবন্ডের ড্র
   ডেপুটি গভর্নর পদে ছয় প্রার্থী


  পুরনো সংখ্যা