logo
   প্রচ্ছদ  -   অর্থ-বাণিজ্য

১০ লাখ নয়, ৩ লাখ টন চাল দিতে রাজী মিয়ানমার
Posted on Sep 09, 2017 10:39:10 AM.

১০ লাখ নয়, ৩ লাখ টন চাল দিতে রাজী মিয়ানমার

১০ লাখ টন চাল আমদানির লক্ষ্য নিয়ে মিয়ানমার গিয়েছিলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। কিন্তু মিয়ানমার সরকার রাজি হয়েছে ৩ লাখ টন চাল দিতে।


ওই পরিমাণ চাল আমদানির একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। তবে এর মধ্যে ৫০ হাজার টন সিদ্ধ ও আড়াই লাখ টন আতপ চাল দেবে মিয়ানমার। গত বৃহস্পতিবার মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোয় একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ওই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

বাংলাদেশের পক্ষে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও মিয়ানমারের পক্ষে দেশটির বাণিজ্যমন্ত্রী থান মিন্ট নিজ নিজ দেশের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। সমঝোতা অনুযায়ী রাষ্ট্রীয় সংস্থা মিয়ানমার রাইস ফেডারেশন আগামী ছয় বছর প্রতিবছর ৩ লাখ টন চাল বাংলাদেশে সরবরাহ করবে। তবে ওই চালের দাম কত হবে, তা ঠিক হবে আরও পরে। সংস্থাটির একটি প্রতিনিধিদল চলতি মাসে বাংলাদেশে এসে দাম নিয়ে আলোচনা করে তা ঠিক করবে।

তবে ওই চাল আগামী ডিসেম্বরের আগে বাংলাদেশে আসছে না বলে সংস্থাটির ভাইস প্রেসিডেন্ট সই টুন মিয়ানমারের দুটি শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। ইলেভেন মিয়ানমারদা গ্লোবাল পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সই টুন বলেন, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্রতিবছর ১০ লাখ টন চাল আমদানির ব্যাপারে আগ্রহ জানানো হয়েছিল। মিয়ানমার মূলত চীনসহ ২১টি দেশে চাল রপ্তানি করে। এ বছর নতুন করে ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের পক্ষ থেকে চাল আমদানির আগ্রহ দেখানো হয়েছে। ফলে মিয়ানমার এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভালো দামে চাল বিক্রি করতে চায়।

মিয়ানমারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী ২০১৭ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ বছরে ৩ লাখ টন করে চাল আমদানি করবে। এর আগে মিয়ানমার মূলত বিভিন্ন দেশে বেসরকারি খাতের মাধ্যমে চাল রপ্তানি করত। বাংলাদেশের সঙ্গে এই প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করল।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে খাদ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিব ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ হেলাল হোসেইন সাংবাদিকদের কে বলেন, চলতি মাসেই মিয়ানমারের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে আসবে। তারা চালের দাম নির্ধারণ করার পর রপ্তানির প্রক্রিয়া শুরু হবে।

মিয়ানমারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির শীর্ষ দৈনিক দ্য গ্লোবাল জানিয়েছে, বাংলাদেশ চাল আমদানি শুরু করায় মিয়ানমার চালের দাম বাড়াতে পেরেছে। চলতি বছরের আগস্ট পর্যন্ত তারা চাল রপ্তানি করে আয় করেছে ৩০ কোটি ডলার। গত বছর তা ছিল ১৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   আগামী ৩ মাস প্লাস্টিকের বস্তায় চাল আনা যাবে
   স্বর্ণের দাম কমলো
   চালের দাম কমানোর আশ্বাস দিলেন ব্যবসায়ীরা
   খোলা বাজারে ৩০ টাকা দরে ওএমএসের চাল বিক্রি শুরু
   ৩৫ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক
   টাঙ্গাইলের সখীপুরে ডিম উৎপাদনে নতুন রেকর্ড
   এডিবি ২০ কোটি মার্কিন ডলার দিবে পৌরসভার উন্নয়নে
   বৃদ্ধি পেল স্বর্ণের দাম
   চাঁদপুরের আড়তগুলোতে লোনা ইলিশ প্রক্রিয়াজাত শুরু
   সরকার দেশে ১শ’টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলবে
   ভেস্তে যাচ্ছে গ্রিন ট্যাক্স আদায়ের উদ্যোগ
   বাংলাদেশের মাথাপিছু জিডিপি হার ছাড়ালো পাকিস্তানকে
   বাংলাদেশ-নেপালের সম্পর্ক দিনদিন জোরদার হচ্ছে : নেপালী রাষ্ট্রদূত
   সিদ্ধান্তহীনতায় অলস পড়ে আছে ১২০০ কোটি টাকা
   চাল আনতে মিয়ানমার গেলেন খাদ্যমন্ত্রী
   বন্যাদুর্গতদের জন্য ১০৫ কোটি টাকা বরাদ্দ
   চট্টগ্রাম থেকে সাড়ে পাঁচ লাখ পশুর চামড়া সংগ্রহের সম্ভাবনা
   বেতন-ভাতা পরিশোধে মেশিন বিক্রি!
   ব্যবসা করবে কি, মূলধন জোগান নিয়েই ব্যস্ত তারা
   স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে ৫১ কোটি ৫০ লাখ ডলাররের ঋণ সহায়তা বিশ্বব্যাংকের
   পেপারলেস ট্রেড চুক্তিতে স্বাক্ষর করতে থাইল্যান্ড গেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী
   ২০১৮ সালে কাতার থেকে এলএনজি আমদানি শুরু হলে গ্যাস সংকট থাকবে না : বাণিজ্যমন্ত্রী
   ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে নতুন টাকা পাওয়া যাবে আজ
   ফোর-জি নেটওয়ার্ক স্থাপনের লক্ষ্যে বাংলালিংক ৫০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে
   অক্টোবরে রাজধানীতে গৃহায়ণ অর্থায়ন মেলা
   ঘরে বসেই শুল্ক পরিশোধের সুযোগ
   আজ বাংলাদেশ ফুড সেফটি কনফারেন্স-২০১৭
   ঈদে যাত্রীদের সুবিধার্তে অতিরিক্ত কোচ সরবরাহ
   মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসী অর্থায়ন প্রতিরোধে বাংলাদেশের উন্নতি
   প্যারিসের টেক্সওয়ার্ল্ডে অংশ নিচ্ছে ২৬ বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান


  পুরনো সংখ্যা