logo
   প্রচ্ছদ  -   অর্থ-বাণিজ্য

সংসদে জনকল্যাণকর ও বাস্তবায়নযোগ্য বাজেট পাস হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী
Posted on Jun 17, 2017 07:10:26 PM.

সংসদে জনকল্যাণকর ও বাস্তবায়নযোগ্য বাজেট পাস হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী

জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের জন্য জনকল্যাণকর ও বাস্তবায়নযোগ্য একটি বাজেট পাস হবে বলে দৃঢ় আশা প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।
তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার এমন কোন ব্যবস্থা নিবে না, যাতে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশন চলছে- সেখানে প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হচ্ছে। আশা করি, চূড়ান্ত পর্যায়ে এমন একটি বাজেট পাস হবে যা বাস্তবায়নযোগ্য এবং জনগণের জন্য ক্ষতিকর এমন কিছু থাকবে না।

শনিবার রাজধানীর একটি হোটেলে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালাগ (সিপিডি) আয়োজিত বাজেট সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।সিপিডির চেয়ারম্যান রেহমান সোবহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, অর্থ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক,সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা আকবর আলী খান, এসডিজি বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, বিএনপির ভাইস চেযারম্যান ইনাম আহমেদ চৌধুরী, সাবেক অর্থ সচিব সিদ্দিকুর রহমান চৌধুরী, সিপিডির সম্মানিত ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্ষ ও ড. মোস্তাফিজুর রহমান,জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য (ভ্যাট) ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন,

ঢাকা চেম্বারের সাবেক সভাপতি আসিফ ইব্রাহিম, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিচালক ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, মেঘনা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুল আমীন, মোনেম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মইনুউদ্দীন মোনেম প্রমুখ আলোচনায় অংশ নেন।

এছাড়া ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সিপিডির পর্যালোচনা তুলে ধরেন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দেশে কর্মহীন প্রবৃদ্ধি হচ্ছে না। যেখানে অবকাঠামো খাতে বিপুল বিনিয়োগ হয়, সেখানে সেই হারে পাল্লা দিয়ে নতুন কর্মসংস্থান তৈরি হয় না। প্রবৃদ্ধির সাথে সাথে কর্মসংস্থানও তৈরি হচ্ছে। তিনি বলেন, আগামী ৫ বছরে দেশে ১ কোটি মানুষ কর্মবাজারে প্রবেশ করবে। পঞ্চবার্ষিকীর পরিকল্পনা অনুযায়ী গুণে গুণে এই ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি হবে বলে আশা করি।

পরিকল্পনামন্ত্রী তৈরি পোশাকের পাশাপাশি রফতানিমুখী অন্যান্য খাতেও নগদ সহায়তা দেয়ার পক্ষে মত প্রকাশ করেন।অনুষ্ঠানে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, এবারের বাজেটের নতুন ভ্যাট আইন বেশি আলোচনা হচ্ছে। অথচ ভ্যাট একটি অত্যন্ত উত্তম কর ব্যবস্থা। ১৬৯ দেশে এই করব্যবস্থা চালু আছে। ১৫ শতাংশ হারে অভিন্ন ভ্যাট হারের বিষয়ে বলবো- বৈশ্বিক গড় ভ্যাট হার ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ। প্রতিবেশি দেশগুলোতে এর হার আমাদের তুলনায় বেশি।

ব্যাংক আমানাতের ওপর আবগারি শুল্ক বৃদ্ধির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ব্যাংক আমানাতের ওপর আবগারি শুল্ক ব্রিটিশ আমল থেকে ছিল। সময়ে সময়ে এটি বেড়েছে। এবার আমরা শুল্ক হার বাড়ানোর প্রস্তাবের পাশাপাশি ১ লাখ টাকার নিচে লেনদেন হলে সেই একাউন্টকে শুল্কমুক্ত রেখেছি। বর্তমানে ২০ হাজার টাকার ওপরে থাকলেই তাকে আবগারি শুল্ক দিতে হয়।

প্রতিমন্ত্রী জানান,বর্তমান সরকার রাস্তাঘাট, সেতু নির্মাণ, বিদ্যুৎ উৎপাদনসহ অবকাঠামো খাতকে অগ্রাধিকার খাত হিসেবে বিবেচনায় নিয়েছে।পৃথিবীর যেকোন দেশের তুলনায় বাংলাদেশে জমির মূল্য ২ থেকে ৩ গুণ বেশি। এছাড়া দূর থেকে মাটি আনতে হয়, এজন্য সড়ক ও সেতুসহ অন্যান্য প্রকল্প বাস্তবায়নে আমাদের এখানে খরচ বেশি।

অর্থ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ পরিস্থিতি ভালো নয়। তবে আশা করি, আগামী ২ বছরের মধ্যে বিদ্যুৎ-গ্যাসসহ অবকাঠামোখাতের উন্নতির ফলে এই পরিস্থিরি পরিবর্তন হবে।

রেহমান সোবহান বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব ব্যাংকগুলোতে আমূল সংস্কার আনার প্রস্তাব করেন। ঋণখেলাপী সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে এবং সরকারি ব্যাংকগুলোর মূলধন তহবিল যোগান বন্ধে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রয়োজন। রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ছাড়া পরিস্থিতির পরিবর্তন হবে না বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সিপিডির সম্মানিত ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টচার্ষ বলেন, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি মূলত সরকারি বিনিয়োগের ওপর নির্ভরশীল। বেসরকারি বিনিয়োগ অনুপস্থিত। এখানে নজর দিতে হবে। পাশাপাশি যে প্রবৃদ্ধি হচ্ছে সেটা কর্মহীন প্রবৃদ্ধি কিনা, সেখানেও সরকারের নজর দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে।

১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট কার্যকর হলে বিদ্যুৎ-গ্যাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও সেবার মূল্য বাড়বে বলে সিপিডির তার বাজেট পর্যালেচনায় তুলে ধরে।সংস্থাটি এর আগে ১২ শতাংশ হারে ভ্যাট আরোপের প্রস্তাব করেছিল।




  এই বিভাগ থেকে আরও সংবাদ

   চট্টগ্রামের চন্দনাইশে আখের বাম্পার ফলন
   ছয়টি ক্রেন কিনতে চীনা কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি
   ঋণে সুদহার কমাল জনতা ও অগ্রণী
   দেশেই উৎপাদিত হচ্ছে ড্রাগন ফল
   ২০২৪ সালের মধ্যেই দারিদ্র্য দূরীকরণে বাংলাদেশ সাফল্য অর্জন করবে
   ব্যাংকমুখী হচ্ছেন বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তারা
   এবছরও রেমিটেন্স কমার আশঙ্কা বিশ্বব্যাংকের
   আজ জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস
   আজ থেকে বিশ্ব বিনিয়োগকারী সপ্তাহ শুরু
   চা রফতানিতে রেকর্ডতম আয়
   নিরাপত্তা সঞ্চিতিতে বিশেষ ছাড় কৃষিঋণ বাড়াতে
   বাংলাদেশের ওষুধ ভূটানে যাচ্ছে
   বাংলাদেশ চাইলে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সহায়তা দিতে প্রস্তুত বিশ্বব্যাংক
   চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের রফতানি আয়ে উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাস এডিবির
   বিশ্ব ব্যাংকের কাছে ২৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ
   আবারও কমেছে স্বর্ণের দাম
   ড্রোন ব্যবহার করে কৃষি উত্পাদন বাড়ানোর চেষ্টা
   আগামী ৩ মাস প্লাস্টিকের বস্তায় চাল আনা যাবে
   স্বর্ণের দাম কমলো
   চালের দাম কমানোর আশ্বাস দিলেন ব্যবসায়ীরা
   খোলা বাজারে ৩০ টাকা দরে ওএমএসের চাল বিক্রি শুরু
   ৩৫ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক
   টাঙ্গাইলের সখীপুরে ডিম উৎপাদনে নতুন রেকর্ড
   এডিবি ২০ কোটি মার্কিন ডলার দিবে পৌরসভার উন্নয়নে
   বৃদ্ধি পেল স্বর্ণের দাম
   চাঁদপুরের আড়তগুলোতে লোনা ইলিশ প্রক্রিয়াজাত শুরু
   সরকার দেশে ১শ’টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলবে
   ভেস্তে যাচ্ছে গ্রিন ট্যাক্স আদায়ের উদ্যোগ
   ১০ লাখ নয়, ৩ লাখ টন চাল দিতে রাজী মিয়ানমার
   বাংলাদেশের মাথাপিছু জিডিপি হার ছাড়ালো পাকিস্তানকে


  পুরনো সংখ্যা